অপরাধ

চট্টগ্রামে ডিবি পরিচয়ে প্রবাসী অপহরণ, আটক ৯

(Last Updated On: সেপ্টেম্বর ১২, ২০১৯)

নগর গোয়েন্দা পুলিশের কর্মকর্তা ও সদস্য পরিচয় দিয়ে দুই প্রবাসীসহ চার জনকে অপহরণ করে মুক্তিপণ আদায়ের চেষ্টা চালিয়েছে সংঘবদ্ধ একটি অপহরণচক্র।

পুলিশের বিশেষ তৎপরতায় অপহৃত দুই প্রবাসীসহ চারজনকে উদ্ধার করার পাশাপাশি আটক করা হয়েছে এ সংঘবদ্ধ চক্রের ৯ সদস্যকে। বুধবার রাতে বাকলিয়ার থানার আব্দুল লতিফ হাটখোলা এলাকায় অভিযান চালিয়ে সংঘবদ্ধ এ অপহরণকারীদের আটক করে বাকলিয়া থানা পুলিশ।

নগর গোয়েন্দা পুলিশ পরিচয় দিয়ে আটক অপহরণকারীরা হলেন, মো. সোহাগ (২৪), জাহিদুর আলম (২৩), আবু হেলাল (২৮), মো. সাকিল (২৪), ইব্রাহিম(২০), মো. ইমরান (২৬), মো. মুজিব (২৫), শওকত আলী (২৬) ও মো. সাহাব উদ্দিন (১৯)।

থানা সূত্রে জানা যায়, দুবাই যাওয়ার লক্ষ্যে বুধবার সন্ধ্যায় বাকলিয়া থানাধীন আব্দুল লতিফ হাটখোলায় মো. সামসুল আলমের ভাড়া বাসায় অবস্থান করছিলেন মো. বেলাল উদ্দিন, বশির, ইয়াছিন ও ফারুক।

এসময় ৮ থেকে ৯ জনের একটি দল বাসায় উপস্থিত হয়ে নিজেদের গোয়েন্দা পুলিশ সদস্য পরিচয় দেন। পরে চারজনকে মারধর করে থানায় নেওয়ার নাম করে বাকলিয়া থানাধীন আব্দুল লতিফ হাটখোলা মহিলা স্কুলের পাশে একটি ফ্যাক্টরীর গার্ড রুমে নিয়ে সকলকে আটকে রাখে। পরে তারা ৫ লক্ষ টাকা মুক্তিপণ দাবী করে টাকা না দিলে বিদেশ যেতে দেবেন না বলে হুমকি দিতে থাকে।

অপহরণকারীরা আটকে রাখা দুই প্রবাসীসহ চারজনের মোবাইল ফোন থেকে তাদের পরিবারের সদস্যদের ফোন দিয়ে দ্রুত টাকা পাঠানোর জন্য দুটি বিকাশ নাম্বার-০১৭৫৩-৫০০৯৩৯, ০১৮৭৫-২৮২০০৮ দেন। আত্মীরা অপহৃতদের ফোন থেকে ফোন দিয়ে মুক্তিপণ দাবীর বিষয়টি বাকলিয়া থানা পুলিশকে বিষয়টি অবহিত করলে পুলিশ অভিযানে নামে।

তথ্য প্রযুক্তির সহায়তায় দুটি বিকাশ নাম্বারের ঠিকানা শনাক্ত করে বাকলিয়া থানা ডেপুটি রোডস্থ হাফিজ টেলিকম সেন্টারের আশেপাশে পুলিশ অবস্থান নেন। অন্যদিকে পুলিশের পরামর্শে অপহরণকারীদের দেওয়া দুটি বিকাশ নাম্বারে ৮ হাজার ২শ ও ২৪ হাজার ৫শ টাকা প্রেরণ অপহৃতদের পরিবার।

টাকা পাঠানোর পর অপহরণকারীরা টাকাগুলো তুলতে এলে আগে থেকে ওৎ পেতে থাকা পুলিশ জাহিদুর আলম (২৩) ও আবু হেলাল (২৮) নামে সংঘবদ্ধ অপহরণচক্রের দুই সদস্যকে গ্রেফতার করে।

উত্তোলনকৃত টাকা গুলো জব্দ করেন। পরে তাদের দেয়া তথ্যমতে ওইদিন রাত সাড়ে ১১ টার সময় আব্দুল লতিফ হাটখোলা মহিলা স্কুলের পাশের ওই গার্ড রুমের ভেতর থেকে অপহৃত মো. বেলাল (৩০), ইয়াছিন (২৪), বশির আহমদ (৪৫) ও মো. ফারুক(২৩)দের উদ্ধার করা হয়। এসময় ডিবি পরিচয়ে অপহরণ চক্রের আরো ৭ সদস্যকে গ্রেফতার করে পুলিশ।

বাকলিয়া থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা ওসি মোহাম্মদ নেজাম উদ্দিন বিষয়টি নিশ্চিত করে বলেন, তথ্য প্রযুক্তি ব্যবহার করে এবং কৌশল অবলম্বন করে গোয়েন্দা পুলিশ পরিচয় দিয়ে সংঘবদ্ধ অপহরণকারী চক্রের ৯ সদস্যকে আটক করতে সক্ষম হয় বাকলিয়া থানা পুলিশ। তাদের প্রত্যেকের বিরুদ্ধে মামলা দায়ের করে বৃহস্পতিবার দুপুরে আদালতে সোপর্দ করা হয়েছে বলে জানান ওসি।

Hits: 19