আন্তর্জাতিক

নতুন বছর নিয়ে নস্ট্রাডামাসের যত ভয়ংকর ভবিষ্যদ্বাণী

(Last Updated On: জানুয়ারি ২, ২০২১)

ষোড়শ শতাব্দীর দুনিয়া কাঁপানো জ্যোতিষী নস্ট্রাডামাস। ইতিহাসের পাতায় ফরাসি এই ভবিষ্যৎ -বক্তাকে কিংবদন্তির স্থান দেওয়া হয়েছে। ১৫৫৫ সালে তিনি ‘লেস প্রফেটিস’নামক বিখ্যাত বইটি লিখেছিলেন। সমকালীন ফরাসি ভাষায় বইটি লেখা হলেও সাংকেতিক শ্লোকগুলোর মধ্যে ইতালিয়, গ্রিক, হিব্রু ও ল্যাটিন শব্দও পাওয়া গেছে। চার ও ছয় লাইনের ৬,৩৩৮টি অন্ত‌্যমিলহীন সাংকেতিক শ্লোকের মধ্যে আগামী ৩,৭৯৭ বছরের ভবিষ্যদ্বাণী করে গিয়েছিলেন। অর্থাৎ আগামী ৩,৭৯৭ বছরের প্রত্যেক বছরে সারা বিশ্বে কী কী ঘটনা ঘটবে তারই ভবিষ্যদ্বাণী করে গিয়েছিলেন ফ্রান্সের এই জ্যোতিষী।

নস্ট্রাডামাসের সাংকেতিক শ্লোকগুলোর ব্যাখ্যাকাররা বলে থাকেন, তার ভবিষ্যদ্বাণীর ৭০ শতাংশই এ পর্যন্ত মিলেছে। নেপোলিয়নের উত্থান, হিটলারের উত্থান ও পতন, দ্বিতীয় বিশ্বযুদ্ধ, জন এফ কেনেডির হত্যা, চাঁদে মানুষের পদার্পণ, উপসাগরীয় যুদ্ধ, সাদ্দামের উত্থান ও পতন, ওয়ার্ল্ড ট্রেড সেন্টারে বিমান হামলা এবং টুইন টাওয়ার ধ্বংসের মতো ঘটনাও নস্ট্রাডামাস মিলিয়েছেন।

তবে তার ভবিষ্যদ্বাণীগুলো মিলে যাচ্ছে নাকি চাতুর্যপূর্ণভাবে বাস্তবতার সঙ্গে সেগুলোর মিল দেখানো হচ্ছে সেটা নিয়ে বিতর্ক থাকলেও নস্ট্রাডামাসকে নিয়ে মানুষের আগ্রহ কিন্তু বিন্দুমাত্র কমেনি। ২০২১ সাল নিয়েও সাংকেতিক ভাষায় কিছু ভয়ংকর ভবিষ্যদ্বাণী করে গিয়েছিলেন নস্ট্রাডামাস।

ব্যাখ্যাকাররা নস্ট্রাডামাসের ভবিষ্যদ্বাণীর যে অর্থ বের করেছেন তা হলো-

* ২০২১ সালে সৌর ঝড় দেখা দিতে পারে। এটি পৃথিবীর বড় ক্ষতির কারণ হতে পারে।

* পৃথিবীর পানি বৃদ্ধি পাবে এবং নিচু ভূমিগুলো তলিয়ে যাবে পানির তলায়। জলবায়ু পরিবর্তনের ক্ষতিকর প্রভাবগুলোর কারণে নানা যুদ্ধ এবং সংঘাত হবে।

* ২৫ নভেম্বর, ২০২১ তারিখে ক্যালিফোর্নিয়ায় ভয়াবহ ভূমিকম্প ঘটতে পারে।

* পৃথিবীতে বিশাল এক ধূমকেতু আঘাত হানতে পারে। বলা হয়েছে, পৃথিবীর কক্ষপথে প্রবেশের পরে সেটি ফুটতে শুরু করবে। আকাশে সেই দৃশ্যটি ‘গ্রেট ফায়ার’ এর মতো হবে।

* একজন রাশিয়ান বিজ্ঞানী একটি জৈবিক অস্ত্র (ভাইরাস) এবং ভাইরাস তৈরি করবেন, যা একটি মানব সভ্যতাকে ধ্বংসের মুখে ঠেলে দেবে। পৃথিবীতে জম্বিদের দেখা যাবে।

* কোনো এক দেশের সৈন্যরা ব্রেইন চিপ ব্যবহার করবে। মস্তিষ্কে এই ডিভাইস ব্যবহারের কারণে তারা হবে ‘আধা রোবট’, সাধারণ সেনার চেয়ে অনেক বেশি শক্তিশালী।