অপরাধ

বাল্যবিয়ে করতে এসে বর কারাগারে

(Last Updated On: জুন ২৭, ২০২০)

লালমনিরহাটের পাটগ্রাম পৌরসভার ৪নম্বর ওয়ার্ড বানিয়াপাড়া গ্রামে বাল্যবিয়ে করতে এসেছিলেন একই উপজেলার জগতবেড় ইউনিয়নের ভান্ডারদহ গ্রামের আনছার আলীর ছেলে মো. আজিনুর রহমান (২০)। ফেরার কথা ছিলো নববধুকে সঙ্গে নিয়ে। কিন্তু বাল্যবিয়ে করতে এসে উল্টো তাঁকেই যেতে হলো কারাগারে।  বিয়ের আসরেই বসানো হয় ভ্রাম্যমাণ আদালত।

ওই পৌর এলাকায় বাল্যবিবাহের অপরাধে ভ্রাম্যমাণ আদালত এক মাসের বিনাশ্রম কারাদণ্ড দিয়েছেন বরকে। পাটগ্রাম উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা (ইউএনও) ও নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট মো. মশিউর রহমানের ভ্রাম্যমাণ আদালতে এ দণ্ডাদেশ দেন।

স্থানীয় বাসিন্দা ও থানা পুলিশ সূত্রে জানা গেছে, শনিবার (২৭ জুন) রাত ২টার দিকে পাটগ্রাম পৌরসভার ৪নম্বর ওয়ার্ড বানিয়াপাড়া গ্রামে কনের বাড়িতে বাল্যবিবাহের আয়োজন করা হয়। এমন গোপন সংবাদের ভিক্তিতে পাটগ্রাম উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা (ইউএনও) মো. মশিউর রহমান ও পাটগ্রাম  থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) সুমন কুমার মহন্তের নেতৃত্বে থানা পুলিশের একদল সদস্য নিয়ে পৌরসভার বানিয়াপাড়া গ্রামের স্থানীয় একটি বিদ্যালয়ের দশম শ্রেণি পড়ুয়া (১৫) কনের বাড়িতে পুলিশ অভিযান চালায়।

এসময় বর ও কনেসহ বাড়ির অন্যন্য লোকজন পালিয়ে যাওয়ার সময় বর আজিনুরকে পুলিশ আটক করেন। তবে পুলিশি অভিযানের আগেই ওই বাল্যবিবাহ সম্পন্ন হয়েছে বলে জানা গেছে। পরে থানা পুলিশ ওই রাতেই বাল্যবিয়ের অভিযোগে আটক বরকে কনের বাড়িতেই ভ্রাম্যমাণ আদালতে হাজির করেন।

এ বিষয়ে পাটগ্রাম থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) সুমন কুমার মহন্ত ঘটনা সত্যতা নিশ্চিত করে বলেন, বাল্যবিবাহের অপরাধে দণ্ডাদেশ প্রাপ্ত আজিনুরকে আজ শনিবার লালমনিরহাট জেলা কারাগারে পাঠানো হয়েছে।

Hits: 24