জাতীয়

বিজিবি মোতায়েনের পরও শিমুলিয়াঘাটে যাত্রীদের ঢল

(Last Updated On: মে ৯, ২০২১)

মুন্সিগঞ্জের শিমুলিয়াঘাটে যাত্রী আসা নিয়ন্ত্রণে দুই প্লাটুন বিজিবি মোতায়েন করা হয়েছে। রোববার (৯ মে) সকাল থেকে বিজিবি সদস্যরা ঘাটের প্রবেশমুখে টহল দিয়ে ঘাটে যাত্রী ও যানবাহন প্রবেশ রোধ করে ফেরত পাঠাচ্ছেন। বিজিবির পাশাপাশি পুলিশ ও স্থানীয় প্রশাসন কাজ করছে। বিজিবির বাধা সত্ত্বেও জোর করে ফেরিতে উঠে যাত্রীরা। অতিরিক্ত যাত্রীর চাপে শিমুলিয়া ঘাট থেকে সকাল ১০টার দিকে প্রায় দুই হাজার যাত্রী নিয়ে ছেড়ে গেছে ফেরি শাহপরাণ। এর আগে ১১টি অ্যাম্বুলেন্স ও কিছু যাত্রী ছেড়ে যায় ফেরি ফরিদপুর।

এদিকে নিষেধাজ্ঞা সত্ত্বেও ভোর থেকে নদী পারাপারের জন্য ঘাট এলাকায় এসে জড়ো হয়েছেন হাজার হাজার যাত্রী। ৩ নম্বর শিমুলিয়া ফেরিঘাটে উপচেপড়া ভিড় দেখা গেছে।

পদে পদে বিঘ্নটা, বেশি ভাড়া আর ফেরি বন্ধ জেনেও যাত্রীরা ঘাটে উপস্থিত হচ্ছেন। বেলা বাড়ার সঙ্গে সঙ্গে বাড়ছে উপস্থিতি। ঘাটে প্রবেশপথের বিভিন্ন পয়েন্টে চেকপোস্ট বসানো হলেও ৪-৫ কিলোমিটার পথ হেঁটে হেঁটে যাত্রীরা ঘাটে আসছেন।

অতিরিক্ত পুলিশ সুপার (শ্রীনগর সার্কেল) আসাদুজ্জামান বলেন, ফেরি চলাচল বন্ধ আছে, বিশেষ বিবেচনায় লাশ ও রোগীবাহী অ্যাম্বুলেন্স পার করা হচ্ছে। আমরা চেকপোস্ট বসিয়েছি। কোনো যাত্রীবাহী যানবাহন ঘাটে প্রবেশ করতে দেয়া হচ্ছে না।

তিনি বলেন, যাত্রীদের বুঝিয়ে ফেরত পাঠানোর চেষ্টা চলছে। পণ্যবাহী যেসব যানবাহন ঘাটে আছে সরকারি নির্দেশনা অনুযায়ী রাতের বেলা সেগুলো পার করা হবে।

এদিকে সকাল ৮টার দিকে তিন নম্বর ফেরিঘাট থেকে লাশ ও রোগীবাহী অ্যাম্বুলেন্স নিয়ে ফেরি বাংলাবাজারের উদ্দেশে ছেড়ে যেতে দেখা গেছে। ফেরিতে কিছু সংখ্যক যাত্রীও পার হয়েছেন।

এ ব্যাপারে শিমুলিয়া ঘাটের সহকারী ব্যবস্থাপক (বাণিজ্য) ফয়সাল আহম্মেদ বলেন, যখন অ্যাম্বুলেন্স আসছে আমরা তা পার করে দেওয়ার চেষ্টা করছি। অ্যাম্বুলেন্স পার করতে গিয়েই যাত্রীরা জোর করে ফেরিতে উঠে পড়ছে।

Hits: 23