প্রধান পাতা

স্বরুপে ফিরছে রাজধানী ঢাকা

(Last Updated On: মে ৫, ২০২০)

দেশে করোনাভাইরাসের প্রার্দুভাবের কারণে আগামী ১৬ মে পর্যন্ত ঘোষনা করা হয়েছে সাধারণ ছুটি। এতদিন ধরে বন্ধ ছিল প্রায় সব ধরণের যানবাহন। শুধু রিকশা ছাড়া প্রায় সব ধরণের যানবাহন বন্ধ ছিল। কিন্তু সাধারণ ছুটির ৩৯তম দিনে স্বরুপে ফিরেছে রাজধানী ঢাকা। শুধুমাত্র গণপরিবহন ছাড়া এখন চলাচল করছে সব ধরনের গাড়ি। এরই মধ্যে শুরু হয়েছে যানজটও।

মূলত গতকাল প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা শপিংমল খোলা রাখার ঘোষণা দেওয়ার পর পরদিনই রাজধানী স্বাভাবিক হতে শুরু করে। বেসরকারি ব্যবসা প্রতিষ্ঠানগুলোও খুলতে শুরু করেছে। ফলে রাজধানীতে মানুষ ঘর থেকে বের হয়ে আসছে।

মঙ্গলবার (৫ মে) ঢাকার বিভিন্ন সড়ক ঘুরে এ চিত্র দেখা গেছে।বিভিন্ন এলাকায় মানুষের ভিড়। অনেককেই হেঁটে কর্মস্থলে যেতে দেখা গেছে। ট্রাক লরি ছাড়াও লেগুনা, সিএনজিচালিত অটোরিকশা, ব্যক্তিগত গাড়ির আধিক্য দেখা গেছে। শুধু বন্ধ রয়েছে দূরপাল্লার বাস।

ঢাকা-চট্টগ্রাম, ঢাকা-সিলেট, ঢাকা-আরিচা, ঢাকা-ময়মনসিংহ-টাঙ্গাইল মহাসড়ক থেকে ঢাকার প্রবেশপথে যানজটই লক্ষ্য করা গেছে।

মঙ্গলবার সকালে রাজধানীর বনানী, বিজয় সরণি, যাত্রাবাড়ী, আব্দুল্লাহপুর ও গাবতলী এলাকায় সিগনালে অপেক্ষা করতে হয়েছে গাড়িগুলোকে। ব্যক্তিগত গাড়ি ও সিএনজি অটোরিকশাসহ বেড়েছে রাজধানীর সড়কে।

ঢাকা-চট্টগ্রাম মহাসড়কের নারায়ণগঞ্জের মদনপুর এলাকায় দেখা যায়, মহাসড়কে প্রচুর গাড়ি। দূরপাল্লার বাস ছাড়া সবই রয়েছে মহাসড়কে। হাইওয়ে পুলিশকে দায়িত্ব পালন করতে হিমশিম খেতে দেখা গেছে। ঢাকায় প্রচুর গাড়ি প্রবেশ করছে। এছাড়াও সিএনজি অটোরিকশার স্ট্যান্ডগুলোতে সিএনজি নিয়ে যাত্রীর জন্য অপেক্ষা করতে দেখা গেছে। একই চিত্র দেখা গেছে গাবতলী ও আব্দুল্লাহপুর দিয়ে ঢাকার প্রবেশপথে।

সিএনজি অটোরিকশা চালক সাইফুল ইসলম বলেন, ঘরে ভাত নেই, পকেটে টাকা নেই। পেটের তাগিদে বের হয়েছি। তিনি জানান, কয়েকদিন আগে থেকেই তিনি বের হলেও যাত্রী পাননি। তবে আগের চেয়ে এখন অনেক বেশি যাত্রী মিলছে।

একই কথা বললেন আরেক সিএনজি চালক রফিকুল। তিনি বলেন, কয়দিন আগেও খুব ভয় আতঙ্ক ছিলো মানুষের মাঝে, এখন আর সেটা নেই। পুরোদমে আমরা গাড়ি চালাচ্ছি। কোনো বাধা নেই।

এদিকে যানজটের কথা বললেন ব্যক্তিগত গাড়িচালক এসএম শাহনেওয়াজ। তিনি বলেন, সকালে বনানী সিগন্যালে যানজট ছিলো। প্রায় ৫-৭ মিনিট অপেক্ষা করতে হয়েছে সিগন্যালে।

রাজধানীর ট্রাফিকের দায়িত্বে থাকা পুলিশ কর্মকর্তারা বলছেন, আগের মতোই ব্যস্ততা বেড়েছে। মঙ্গলবার মহাসড়ক অনেকটা স্বাভাবিক।

এদিকে কাঁঠালবাড়ী ও শিমুলিয়া ঘাটে ঢাকামুখী মানুষের উপচে পড়া ভিড় ছিল লক্ষণীয়। তবে ঢাকামুখী যাত্রীর চাপ কমেছে দৌলতদিয়া ফেরিঘাটে।

Hits: 0