চট্টগ্রাম

বঙ্গবন্ধুর সমাধিতে শ্রদ্ধা জানালেন রেজাউলসহ কাউন্সিলররা

(Last Updated On: ফেব্রুয়ারি ১২, ২০২১)

চট্টগ্রাম সিটি করপোরেশনের (চসিক) নবনির্বাচিত মেয়র এম রেজাউল করিম চৌধুরী ও  কাউন্সিলররা টুঙ্গিপাড়ায় বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের সমাধিতে শ্রদ্ধা জানিয়েছেন।  শুক্রবার (১২ ফেব্রুয়ারি) ঢাকা থেকে গোপালগঞ্জ জেলার টুঙ্গিপাড়ায় যান তারা।

এ সময় তারা জেয়ারত ও মোনাজাত করেন।  

রেজাউল করিম চৌধুরী উপস্থিত দলের নেতাকর্মী ও কাউন্সিলরদের উদ্দেশে বলেন, চসিক নির্বাচনে মেয়র পদে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা প্রথম বারের মতো আমাকে নৌকা প্রতীক দিয়েছিলেন। মেয়র পদে চট্টগ্রাম নগরবাসী নৌকার পক্ষে যে গণরায় দিয়েছেন আমি সেজন্য অভিভূত এবং জননেত্রী শেখ হাসিনার প্রতি কৃতজ্ঞ।  

জাতীয় অর্থনীতিতে চট্টগ্রামের গুরুত্বের কথা উপলব্ধি করে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা বিগত এক যুগ ধরে অনেক মেগা প্রকল্প বাস্তবায়ন করে চলেছেন। এগুলোর বাস্তবায়ন সম্পন্ন হলে চট্টগ্রামের চেহারাই শুধু পাল্টে যাবে না জাতীয় অর্থনীতিতে ইতিবাচক প্রভাব ফেলবে।  

তিনি বলেন, জলাবদ্ধতা নিরসনসহ জনগুরুত্বপুর্ণ বিষয়গুলো প্রাধান্য দিয়ে আমার কার্যদিবসের প্রথম ১০০ দিনের মধ্যে বেশ কিছু জরুরি সেবামূলক কাজ অগ্রাধিকার ভিত্তিতে শেষ করার কৌশল নির্ধারণ করেছি। আশাকরি নগরবাসী ও চট্টগ্রাম সিটি করপোরেশনের সব স্তরের কর্মকর্তা-কর্মচারীরা এ ব্যাপারে উদ্যোগী ভূমিকা পালন করবেন। আমি আরো আশাকরি বঙ্গবন্ধুর আরাধ্য সোনার বাংলা বিনির্মাণে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা যে কর্মযজ্ঞ চালিয়ে যাচ্ছেন তা চট্টগ্রামের ক্ষেত্রেও গুরুত্বপূর্ণ ও বিবেচ্য বিষয় বিধায় নগরবাসী শেখ হাসিনার পাশে থাকবেন এবং তাঁর হাতকে শক্তিশালী করে সব চক্রান্ত ও প্রতিবন্ধকতা ডিঙিয়ে সামনের দিকে এগিয়ে যাবেন।  

তিনি চসিক নির্বাচনে তাকে বিপুল ভোটে বিজয়ী করার জন্য দলীয় নেতাকর্মীদের ধন্যবাদ ও কৃতজ্ঞতা জানিয়ে বলেন, ঐক্যই আমাদের শক্তির ভিত্তি। তাই বিভেদ-বিভাজনের কোনো অবকাশ নেই।  

এ সময় চট্টগ্রাম নগর আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক ও সাবেক সিটি মেয়র আ জ ম নাছির উদ্দীনসহ দলীয় শীর্ষ নেতা, নগর আওয়ামী লীগের সভাপতি মণ্ডলীর সদস্য, সম্পাদক মণ্ডলীর সদস্য ও নির্বাহী সদস্যরা উপস্থিত ছিলেন।

চট্টগ্রামে সোমবার (১৫ ফেব্রুয়ারি) বেলা ১১টায় ইঞ্জিনিয়ার্স ইনস্টিটিউশন মিলনায়তনে চসিক আয়োজিত সুধী সমাবেশে যোগ দেবেন মেয়র। ইতিমধ্যে চট্টগ্রামের মন্ত্রী, সংসদ সদস্য, বিশ্ববিদ্যালয়ের উপাচার্য, বিভিন্ন সেবা সংস্থার প্রধান, রাজনীতিক, সাংবাদিকসহ অতিথিদের আমন্ত্রণপত্র বিতরণ করা হয়েছে।  সমাবেশ শেষে টাইগারপাসে চসিকের কার্যালয়ে মেয়রের দায়িত্ব গ্রহণ করবেন রেজাউল করিম চৌধুরী।  

গত ২৭ জানুয়ারি অনুষ্ঠিত ভোটে মেয়র নির্বাচিত হন আওয়ামী লীগের প্রার্থী মো. রেজাউল করিম চৌধুরী।  তিনি ৩ লাখ ৬৯ হাজার ২৮৪ ভোট পেয়ে বেসরকারিভাবে নির্বাচিত হয়েছেন। তার নিকটতম প্রতিদ্বন্দ্বী বিএনপির ডা. শাহাদাত হোসেন পেয়েছেন ৫২ হাজার ৪২৯ ভোট। নির্বাচন ভোট পড়েছে ২২ শতাংশ।  

সংরক্ষিত আসনের কাউন্সিলর পদে ১৪ জন এবং সাধারণ আসনের কাউন্সিলর পদে ৪০ জন নির্বাচিত হয়। চসিকের ৩১ নম্বর আলকরণ ওয়ার্ডের কাউন্সিলর প্রার্থী তারেক সোলেমান সেলিমের মৃত্যুতে ওই পদে নির্বাচন হয়নি। আগামী ২৮ ফেব্রুয়ারি এই ওয়ার্ডে কাউন্সিলর পদে ভোটগ্রহণ হবে।