জাতীয়

স্ত্রী ও সন্তানকে হত্যার পর নৈশকোচে ঢাকায়

(Last Updated On: জানুয়ারি ৫, ২০২১)

রাজশাহীতে স্ত্রী ও পাঁচ মাসের শিশুকন্যাকে শ্বাস রোধ করে হত্যার পর নৈশকোচে চেপে রাজধানী ঢাকায় আসছিলেন মো. ফিরোজ নামের এক ব্যক্তি। আজ মঙ্গলবার ভোরে ঢাকার গাবতলীর উৎসব সিনেমা হল এলাকায় পুলিশের হাতে ধরা পড়েন তিনি।

গতকাল সোমবার গভীর রাতে রাজশাহীর পুঠিয়া উপজেলার গোপালহাটি গ্রামের ফকিরপাড়া এলাকায় স্ত্রী ও শিশুকন্যাকে হত্যা করেন ফিরোজ। পেশায় তিনি একজন ভ্যানচালক। নিহত স্ত্রীর নাম পলি খাতুন (২০) ও পাঁচ মাস বয়সী কন্যাশিশুটির নাম ফারিয়া।বিজ্ঞাপন

রাজশাহী জেলা পুলিশের মুখপাত্র ও জ্যেষ্ঠ অতিরিক্ত পুলিশ সুপার ইফতে খায়ের আলম আজ দুপুরে বলেন, আসামি ফিরোজ মাদকাসক্ত। সোমবার গভীর রাতে স্ত্রী ও শিশুকন্যাকে শ্বাসরোধে হত্যার পর একটি নৈশকোচে চেপে ঢাকায় পালিয়ে যাওয়ার চেষ্টা করছিলেন তিনি। আজ ভোরে ঢাকার দারুস সালাম থেকে ফিরোজকে আটক করেছে পুলিশ। এখন তাঁকে রাজশাহীতে নিয়ে আসা হচ্ছে।

এদিকে মা ও শিশুর মরদেহ এখন পুঠিয়া থানায় রয়েছে। সুরতহাল প্রতিবেদন তৈরির পর মরদেহ দুটি ময়নাতদন্তের জন্য রাজশাহী মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে পাঠানো হবে।