খেলা

৩২ মিনিটেই রোনালদোর হ্যাটট্রিক

(Last Updated On: মার্চ ১৫, ২০২১)

উয়েফা চ্যাম্পিয়নস লিগে রাউন্ড অব ১৬ থেকে বিদায় নেওয়ার সকল দায়ভায় চেপেছিল তার ওপরেই। সেসব সমালোচনা গায়ে মাখেন না তা সাফ জানিয়েছিলেন তিনি। বলেছিলেন চ্যাম্পিয়নরা জবাব মাঠেই দেয়। আর হ্যাঁ জবাবটা মাঠেই দিলেন সিআর সেভেন। ইতালিয়ান সিরি’আ লিগে ক্যাগলিয়ারির বিপক্ষে ৩২ মিনিটের মধ্যেই করেন তিনটি গোল। তার হ্যাটট্রিকের ওপর ভর করে সহজ জয় পেয়েছে জুভেন্টাস।

রিয়াল মাদ্রিদ ছেড়ে ইতালিতে যাওয়ার পর ২০২০ সালের জানুয়ারিতে কাগলিয়ারির বিপক্ষে প্রথম হ্যাটট্রিক করেছিলেন ক্রিস্টিয়ানো রোনালদো। রোববার রাতে এক বছর দুই মাস পর ইতালিয়ান সিরি’আ লিগে নিজের দ্বিতীয় হ্যাটট্রিকের দেখা পেয়েছেন রোনালদো। এবারও প্রতিপক্ষ সেই কাগলিয়ারি।

কাগলিয়ারির মাঠে ম্যাচের ১০ মিনিটের মাথায় ডান দিক থেকে হুয়ান কুয়াদরাদোর দারুণ কর্নারে লাফিয়ে জোরালো হেডে বল জালে জড়ান ক্রিস্টিয়ানো রোনালদো। এরপর ডি বক্সের ভেতর ডি বক্সের ভেতর রোনলদোকে ফাউল করায় রেফারি জুভেন্টাসকে পেনাল্টি উপহার দেন। ম্যাচের ২৫তম মিনিটে স্পট কিক থেকে ব্যবধান দ্বিগুণ করেন এই পর্তুগিজ যুবরাজ।

২০২০/২১ সিরি আ’র মৌসুমে এখন পর্যন্ত রোনালদোর গোল সংখ্যা ২৩টি। আর তিনি এবারের আসরের সর্বোচ্চ গোলদাতা।

৩-০ গোলের ব্যবধানে এগিয়ে যাওয়া জুভেন্টাস ম্যাচের দ্বিতীয়ার্ধের ৬১ মিনিটের মাথায় একটি গোল হজম করলেও ঘটেনি কোনো দুর্ঘটনা। ডান দিক থেকে জাপ্পার পাস পেয়ে প্রথম ছোঁয়ায় জোরালো শটে বল জালে পাঠান আর্জেন্টাইন ফরোয়ার্ড সিমেওনে। যোগ করা সময়ের শেষ মিনিটে চতুর্থ গোলও পেতে পারতেন রোনালদো। একমাত্র বাধা ছিলেন গোলরক্ষক। তবে তার শট দারুণ নৈপুণ্যে রুখে দেন আলেস্সিও ক্রাগনো। তাতেই ৩-১ গোলের ব্যবধানে জয় নিয়েই সন্তুষ্ট থাকতে হয় জুভেন্টাসকে।

এই জয়ে ২৬ ম্যাচে ১৬ জয় ও ৭ ড্র ও ৩ হারে ৫৫ পয়েন্ট নিয়ে তৃতীয় স্থানে আছে জুভেন্টাস। ১ পয়েন্ট বেশি নিয়ে দুইয়ে এসি মিলান। আর ২৭ ম্যাচে ৬৫ পয়েন্ট নিয়ে শীর্ষে ইন্টার মিলান।