জাতীয়

টানা চার দিন দেশের সর্বনিম্ন তাপমাত্রা তেঁতুলিয়ায়

(Last Updated On: জানুয়ারি ৪, ২০২১)

দেশের সর্ব–উত্তরের জেলা পঞ্চগড়ের তেঁতুলিয়ায় টানা চার দিন ধরে সর্বনিম্ন তাপমাত্রা বিরাজ করছে। তবে কয়েক দিন ধরে সকাল সকাল ঝলমলে রোদের দেখা মেলায় তাপমাত্রা সামান্য বৃদ্ধি পেয়েছে। এ ছাড়া দিন ও রাতের সর্বোচ্চ ও সর্বনিম্ন তাপমাত্রার মধ্যে পার্থক্যের সৃষ্টি হচ্ছে। মাঝারি শৈত্যপ্রবাহের তীব্রতা কমে মৃদু শৈত্যপ্রবাহ বইছে।

আজ সোমবার সকাল নয়টায় তেঁতুলিয়ায় দেশের সর্বনিম্ন তাপমাত্রা রেকর্ড করা হয়েছে ৯ ডিগ্রি সেলসিয়াস। গতকাল রোববার সকাল নয়টায় তেঁতুলিয়ায় দেশের সর্বনিম্ন তাপমাত্রা রেকর্ড করা হয় ৮ দশমিক ২ ডিগ্রি সেলসিয়াস। গত শনিবার এখানে দেশের সর্বনিম্ন তাপমাত্রা ছিল ৭ দশমিক ৭ ডিগ্রি সেলসিয়াস। গত শুক্রবার সর্বনিম্ন তাপমাত্রা রেকর্ড করা হয়েছিল ৭ দশমিক ৬ ডিগ্রি সেলসিয়াস।

এদিকে কুয়াশার পরিমাণ কমে গিয়ে কয়েক দিন ধরে সকাল সকাল দেখা মিলছে সূর্যের। তবে রাতভর উত্তরের ঝিরিঝিরি হিমেল বাতাসের সঙ্গে কুয়াশা থাকায় শীতে কাবু হয়ে পড়ছে এই জনপদের মানুষ। জেঁকে বসেছে শীত। পঞ্চগড়সহ আশপাশের জেলাগুলোর ওপর দিয়ে বয়ে যাচ্ছে মৃদু শৈত্যপ্রবাহ।

সকাল সকাল রোদের দেখা মেলায় দিনের তাপমাত্রা কিছুটা বাড়ছে। সেই সঙ্গে উত্তরের হিমেল বাতাসে দিনভর বিরাজ করছে শীতের আমেজ। তবে বিকেল হতে না হতেই শুরু হচ্ছে ঝিরিঝিরি বাতাস। রাতে কুয়াশার পরিমাণ কমে গিয়ে দাপট বাড়ছে উত্তরের হিমেল বাতাসের। এতে ভোগান্তিতে পড়ছে সাধারণ মানুষ।বিজ্ঞাপন

সকাল পর্যন্ত কনকনে ঠান্ডা অনুভূত হওয়ায় কাজে ব্যাঘাত ঘটছে খেটে খাওয়া মানুষের। সকালবেলা ঠান্ডা বাতাসে কাবু হয়ে পড়া মানুষ গরম কাপড়ের পাশাপাশি অনেকেই খড়কুটো জ্বালিয়ে শীত নিবারণের চেষ্টা করছেন। কয়েক দিনের রোদে দিনের বেলা তাপমাত্রা বাড়ায় খেটে খাওয়া মানুষের মধ্যে কিছুটা স্বস্তি দেখা গেছে। বেড়েছে কর্মচাঞ্চল্য।

পঞ্চগড় সদর উপজেলার কাঠমিস্ত্রি রশিদুল ইসলাম বলেন, কয়েক দিন আগে দিনের বেলাও খুব কুয়াশা ছিল। তখন রাত-দিন সমান ঠান্ডা ছিল। কাজ করতে খুব কষ্ট হয়েছে। তবে এখন রাতে বেশি ঠান্ডা লাগলেও দিনের বেলা রোদ উঠছে। দুপুরের পর থেকেই ঠান্ডা বাতাস লাগতে শুরু করছে।

তেঁতুলিয়া আবহাওয়া পর্যবেক্ষণাগারের ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা মো. রাসেল শাহ বলেন, টানা চার দিন ধরে তেঁতুলিয়ায় দেশের সর্বনিম্ন তাপমাত্রা রেকর্ড করা হয়েছে। এই এলাকার ওপর দিয়ে বয়ে যাওয়া মাঝারি শৈত্যপ্রবাহের তীব্রতা কমে মৃদু শৈত্যপ্রবাহে পরিণত হয়েছে। তেঁতুলিয়ায় আকাশে সামান্য মেঘ থাকলেও রাতের কুয়াশা সকাল সকাল কমে গিয়ে ঝলমলে রোদের দেখা মিলছে। এতে তাপমাত্রা কিছুটা বৃদ্ধি পাচ্ছে। উত্তর-পশ্চিম দিক থেকে আসা হিমালয়ের হিম বায়ুর কারণে রাতে তাপমাত্রা কমে গেলেও দিনে সূর্যের তাপে কিছুটা বেড়েছে। আগামী কয়েক দিন এই এলাকায় আবহাওয়ার অবস্থা এমন থাকতে পারে বলে তিনি জানান।