আন্তর্জাতিক

স্কুলে হামলা চালিয়ে ৪০ শিক্ষার্থীকে অপহরণ

(Last Updated On: ফেব্রুয়ারি ১৮, ২০২১)


নাইজেরিয়ায় ফের স্কুলে হামলা চালিয়ে শিক্ষার্থীদের অপহরণ করেছে দুর্বৃত্তরা। অপহৃত ৪০ জনের মধ্যে ছাত্র ও শিক্ষক সবাই আছেন।নাইজেরিয়ার প্রেসিডেন্ট পুলিশ এবং নিরাপত্তা বাহিনীকে দ্রুত অপহৃতদের খুঁজে বের করার নির্দেশ দিয়েছেন। খবর ডয়েচে ভেলের।

স্থানীয় মানুষের বক্তব্য, ঘটনার পেছনে ক্রিমিনাল গ্যাংয়ের হাত রয়েছে। যদিও এখনও পর্যন্ত কোনো গোষ্ঠী এর দায় স্বীকার করেনি।

মধ্য নাইজেরিয়ায় অবস্থিত স্কুলটির নাম গভর্নমেন্ট সায়েন্স কলেজ। প্রতিদিনের মতো বুধবারও সেখানে ক্লাস শুরু হয়েছিল।

প্রত্যক্ষদর্শীদের বক্তব্য– স্কুলের পেছনের জঙ্গল এলাকা দিয়ে ভেতরে ঢুকে পড়ে আততায়ীরা। তাদের হাতে আধুনিক অস্ত্র ছিল। স্কুলের ছাত্র, শিক্ষক এবং শিক্ষাকর্মীদের তারা পেছনের ঝোপে নিয়ে যায়।

অপহরণের সময় ছাত্ররা বাধা দেওয়ার চেষ্টা করে। এ সময় অস্ত্রধারীদের হামলায় অন্তত একজন ছাত্রের মৃত্যুর খবর পাওয়া গেছে।

স্কুল সূত্রে জানানো হয়েছে, অপহৃতদের মধ্যে ২৬ জন ছাত্র রয়েছে। বাকি সবাই শিক্ষক ও শিক্ষাকর্মী।

ঘটনার পরেই এলাকার সব স্কুল বন্ধ করে দেওয়া হয়। উদ্বিগ্ন অভিভাবকরা স্কুলের সামনে জড়ো হন। প্রেসিডেন্ট স্বয়ং জানিয়েছেন, পুলিশ ও নিরাপত্তাকর্মীরা দ্রুত অপহৃতদের খুঁজে বের করবেন। সবাই যাতে সুস্থভাবে ফিরতে পারেন, সেদিকে নজর দেওয়া হবে। যত দ্রুত সম্ভব এ কাজ করা হবে বলে তিনি জানিয়েছেন।

গত কয়েক বছর ধরে নাইজেরিয়ায় স্কুল ছাত্রদের অপহরণের বিষয়টি উদ্বেজনক হারে বেড়েছে। এর আগেও একাধিকবার দেশের বিভিন্ন প্রান্তে এমন ঘটনা ঘটেছে। সাধারণত ছাত্রদের অপরহরণ করে বড়সড় মুক্তিপণ দাবি করে অপহরণকারীরা।